kids stomach pain

সোনামনির পেট ব্যথা? কি করবেন ..

সোনামনির যত্ন

Your ads will be inserted here by

Easy Plugin for AdSense.

Please go to the plugin admin page to
Paste your ad code OR
Suppress this ad slot.

(হেলথপাটনার.কম) শিশুরা আমাদের পরম আদরের ধন। তাদের সুস্বাস্থ্য ও ভালো থাকা এটা আমরা সবর্দাই চাই। তাই তাদের কে সুস্থ্য রাখাটাই আমাদের কাছে চিন্তার বড় কারণ। ছোটদের হরহামেশা যে সমস্যাগুলো হয় তাহলো পেট ব্যথা, বদহজম, গ্যাস কিংবা কোষ্ঠকাঠিণ্য। শিশুদের যদি একটি নিদিষ্ট জায়গায় ব্যথা হয় তাহলে তা অ্যাপেন্ডিসাইটিস ব্যথা হতে পারে, অথবা তা পিত্তথলি তে সমস্যা বা আলসার জনিত সমস্যা  হতে পারে বা অন্য কোন কারণে ও হতে পারে।

শিশুর পেট ব্যথা যদি নিয়মিত হয় বা হঠাৎ শুরু বা হঠাৎ ভালো হয়ে যায়, তাহলে তা মারাত্মক সমস্যার লক্ষণ ও হতে পারে। এক্ষেত্রে মোটেও অবহেলা করা যাবেনা। পেট ব্যথার কারণ নির্ণয় করা জরুরী। অবহেলা না করে ডাক্তারের শরনাপন্ন হওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

kids bally pain
www.healthpatner.com

লক্ষ্য করে দেখুন, আপনার শিশু যদি পেট ব্যথার সময়ে পা তুলে পেটের কাছে ‍নিয়ে এসে জড়ো করে রাখে কিনা বা খাবার গ্রহনের পরিমাণ খুব কমে গেছে কি ? তাহলে মোটেও দেরি করা উচিত হবে না। আপনি দ্রুত আপনার সন্তান কে নিকটস্ত শিশু বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান।

(হেলথপাটনার.কম) এবার জানুন পেট ব্যথার আপনার সোনামনির জন্য সাধারণভাবে  যা করতে পারেন:

  • কিছুক্ষণ ধৈর্য্য ধারণ করতে পারলে অনেক সময় এমনেই সেরে যেতে পারে। এক্ষেত্রে এটা করা যেতে পারে যে, পেটের উপরের অংশে হালকা সেক দিতে পারেন।
  • হজমে যদি কোন সমস্যা কারণে পেটে ব্যথা হয়ে থাকে তাহলে তাকে দই খাওয়াতে পারেন।
  • পানি পান করালেও অনেক সময়ে কিছুটা উপকার পাওয়া যায়।

এ বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল করবেন:

১. পেট ব্যথায় শিশুর পেট শক্ত হয়ে যাওয়া।

২. দীর্ঘক্ষণ এক নাগারে ব্যথা থাকা

৩. ডায়াবিয়াসহ জ্বর হওয়া

৪. বমি হওয়া

৫. এক নাগারে তিন দিন পায়খানা না হওয়া

৬. পেটে কোন ধরণের আঘাত পাওয়া

৭. শ্বাস প্রশ্বাস নিতে কস্ট হওয়া ইত্যাদি।

পরোক্ত সমস্যাগুলো পরিলক্ষিত হওয়া মাত্র ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী পরিচর্যা করুন।

www.healthpatner.com

(হেলথপাটনার.কম) এবার জানুন আপনার সোনামনির পেট ব্যথায় সে সব থেকে বিরত থাকবেন…

১. ডাক্তারের পরামর্শ ব্যতিত কোন ধরনের ঔষধ সেবন করাবেন না।

২. এ সময়ে সোডা বা কার্বোনেটেড বেভারেজ খাওয়ানো থেকে বিরত থাকবেন।

৩. চর্বিযুক্ত খাবার ও অন্যান্য দুগ্ধজাত খাবার খাওয়ানো থেকে বিরত থাকবেন।

৪. চকোলেট জাতীয় খাবার বন্ধ রাখুন ।

৫. এ সময়ে তার মুখে লেবুজাতীয় খাদ্য দিবেন না।

সোনামনির যত্নে আপনার করণীয়…

** প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করান।

** চর্বি ও তৈলাক্ত খাদ্য বাচ্চার জন্য ফলপ্রসু নয়। তাই এ থেকে বাচ্চাকে দুরে রাখাই সমুচিত।

** শিশুকে শাকসবজি ও ফলমুল খাওয়ান।

** তাকে পরিষ্কার পরিছন্ন রাখুন এবং স্বাস্থ্যসম্বত খাবার দিন।

** আপনার সোনামনিকে প্র্রতিদিন খেলাধুলা করার সময় দিন। এতে তার দেহ মন সুস্থ্য থাকবে।

bally pain
www.healthpatner.com

নিজে ভালো থাকুন অন্যকে ভালো থাকতে সহযোগিতা করুন।

 

সুত্র: অনলাইন

 

 

 

Leave a Reply